• No ratings found yet!
  • Store Closed
View
Filter
  • দেয়ালে ব্যবহৃত ফুল দানি

    Sold By: Sohozeto

    ঘর সাজাতে মাটির শোপিস 


    ঘর সাজাতে নানা ধরনের শোপিস ব্যবহার করা হয়। তবে মাটির তৈরি ছোট ছোট তৈজসপত্রগুলো আপনার ঘরের শোভা বাড়িয়ে তুলবে দ্বিগুণ। বিশেষ করে মোমদানি, কলমদানি, মাছ, ফুল, ফল শোপিস হিসেবে খুব সহজেই পড়ার টেবিল, শোকেসে মানিয়ে যায়। এছাড়াও বড় শোপিস হিসেবে মাটির তৈরি বিভিন্ন জীবজন্তু যেমনহাতি, বাঘ, ঘোড়া বা পাখি বহুকাল ধরেই ব্যবহৃত হয়ে আসছে। ঘরের দরজার কাছে বা ড্রয়িং রুমের কোণায় রাখতে পারেন এগুলো। এছাড়াও ওয়াল হ্যাংগিংগুলোতেও ছোট ছোট মাটির শোপিস রাখতে পারেন।

  • দেয়ালে ব্যবহৃত ফুল দানি

    Sold By: Sohozeto

    ঘর সাজাতে মাটির শোপিস 


    ঘর সাজাতে নানা ধরনের শোপিস ব্যবহার করা হয়। তবে মাটির তৈরি ছোট ছোট তৈজসপত্রগুলো আপনার ঘরের শোভা বাড়িয়ে তুলবে দ্বিগুণ। বিশেষ করে মোমদানি, কলমদানি, মাছ, ফুল, ফল শোপিস হিসেবে খুব সহজেই পড়ার টেবিল, শোকেসে মানিয়ে যায়। এছাড়াও বড় শোপিস হিসেবে মাটির তৈরি বিভিন্ন জীবজন্তু যেমনহাতি, বাঘ, ঘোড়া বা পাখি বহুকাল ধরেই ব্যবহৃত হয়ে আসছে। ঘরের দরজার কাছে বা ড্রয়িং রুমের কোণায় রাখতে পারেন এগুলো। এছাড়াও ওয়াল হ্যাংগিংগুলোতেও ছোট ছোট মাটির শোপিস রাখতে পারেন।

  • দেয়ালের ফুল দানি

    Sold By: Sohozeto

     

    • ১০০% প্রতিদিনের প্রয়োজনে ব্যবহার করা যাবে।
    • খুবই ভালো মানের পণ্য।
    • ভালোভাবে পোড়ানো তাই খুবই মজবুত
  • Fresh Soyabin Oil – 5 Ltr

    Sold By: Sohozeto

    ১০০% বাজারের দামেই ঘরে বসে ফ্রেস সয়াবিল তেল অর্ডার করুন।

  • Miniket Rice – মিনিকেট চাউল

    Sold By: Sohozeto

    হরিন মার্কা মিনিকেট চাউল পাবেন বাজারের মুল্যে ঘরে বসে।

    Sold By: Sohozeto

    Miniket Rice – মিনিকেট চাউল

    ৳ 1,250৳ 1,300 4% off
  • কাঠের কাভারসহ জন্মদিনের ডাইরি

    Sold By: Sohozeto

    কাঠের বাসন পরিষ্কার রাখার উপায়


    লেবুর রস

    গরম পানিতে লেবুর রস মেশান। ওই মিশ্রণের মধ্যে কাঠের বাসনগুলি ১৫ মিনিট ভিজিয়ে রাখুন। তারপর লেবুর জল থেকে তুলে শুকনো কাপড় দিয়ে মুছে রোদে শুকোতে দিলেই বাসনের দাগ, গন্ধ সব দূর হয়ে যাবে।

    লবণ

    গরম পানির সঙ্গে লবণ মিশিয়ে কাঠের বাসনগুলি পাঁচ মিনিট ভিজিয়ে রাখুন। এবার জল থেকে তুলে কাপড় দিয়ে ভালো করে মুছে সূর্যের আলোতে শুকিয়ে নিলেই বাসন অনেকদিন ভালো থাকবে।

    হলুদ

    প্রথমে কাঠের বাসনগুলি পানি দিয়ে ভিজিয়ে রাখুন। তারপর লেবুর রস ও হলুদ দিয়ে ঘষলেই কাঠের বাসন পরিষ্কার হয়ে যাবে।

    বেকিং সোডা

    লেবুর রসের সঙ্গে বেকিং সোডা মিশিয়ে একটি পেস্ট তৈরি করুন। এবার এই পেস্টটি কাঠের বাসনগুলিতে ১৫ মিনিট লাগিয়ে রোদে শুকোতে দিন। এবার গরম পানি দিয়ে ভালো করে বাসন ধুয়ে ফেললেই কাঠের বাসনের দাগ উঠে যাবে।

    ভিনিগার

    প্রথমে একটি বাটিতে এক চামচ ভিনিগার ও এক টেবিল চামচ মধু মেশান। এরপর এতে একটি সুতির কাপড় ভিজিয়ে বাসনগুলি মুছে নিন। এবার বাসনগুলি শুকিয়ে নিলেই বাসনগুলি নতুনের মতো মনে হবে।

    গরম পানি

    কাঠের চামচে রান্না করার সময় অনেকটা খাবার লেগে যায় চামচে। তাই এগুলি দিয়ে রান্না করার পর গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেললে আপনাকে এর জন্য আর বাড়তি ঝামেলায় পড়তে হবে না।

    শিরিষ কাগজ

    যদি কাঠের বাসনের নাছোড়বান্দা দাগ একদমই উঠতে না চায় তাহলে শিরিষ কাগজ দিয়ে ঘষলেই দাগ উঠে যাবে। কিন্তু বারবার শিরিষ কাগজ ব্যবহার না করাই ভালো। কারণ এতে বাসন পাতলা হয়ে যেতে পারে।

  • কাঠের কভারসহ ডাইরি

    Sold By: Sohozeto

    কাঠের বাসন পরিষ্কার রাখার উপায়


    লেবুর রস

    গরম পানিতে লেবুর রস মেশান। ওই মিশ্রণের মধ্যে কাঠের বাসনগুলি ১৫ মিনিট ভিজিয়ে রাখুন। তারপর লেবুর জল থেকে তুলে শুকনো কাপড় দিয়ে মুছে রোদে শুকোতে দিলেই বাসনের দাগ, গন্ধ সব দূর হয়ে যাবে।

    লবণ

    গরম পানির সঙ্গে লবণ মিশিয়ে কাঠের বাসনগুলি পাঁচ মিনিট ভিজিয়ে রাখুন। এবার জল থেকে তুলে কাপড় দিয়ে ভালো করে মুছে সূর্যের আলোতে শুকিয়ে নিলেই বাসন অনেকদিন ভালো থাকবে।

    হলুদ

    প্রথমে কাঠের বাসনগুলি পানি দিয়ে ভিজিয়ে রাখুন। তারপর লেবুর রস ও হলুদ দিয়ে ঘষলেই কাঠের বাসন পরিষ্কার হয়ে যাবে।

    বেকিং সোডা

    লেবুর রসের সঙ্গে বেকিং সোডা মিশিয়ে একটি পেস্ট তৈরি করুন। এবার এই পেস্টটি কাঠের বাসনগুলিতে ১৫ মিনিট লাগিয়ে রোদে শুকোতে দিন। এবার গরম পানি দিয়ে ভালো করে বাসন ধুয়ে ফেললেই কাঠের বাসনের দাগ উঠে যাবে।

    ভিনিগার

    প্রথমে একটি বাটিতে এক চামচ ভিনিগার ও এক টেবিল চামচ মধু মেশান। এরপর এতে একটি সুতির কাপড় ভিজিয়ে বাসনগুলি মুছে নিন। এবার বাসনগুলি শুকিয়ে নিলেই বাসনগুলি নতুনের মতো মনে হবে।

    গরম পানি

    কাঠের চামচে রান্না করার সময় অনেকটা খাবার লেগে যায় চামচে। তাই এগুলি দিয়ে রান্না করার পর গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেললে আপনাকে এর জন্য আর বাড়তি ঝামেলায় পড়তে হবে না।

    শিরিষ কাগজ

    যদি কাঠের বাসনের নাছোড়বান্দা দাগ একদমই উঠতে না চায় তাহলে শিরিষ কাগজ দিয়ে ঘষলেই দাগ উঠে যাবে। কিন্তু বারবার শিরিষ কাগজ ব্যবহার না করাই ভালো। কারণ এতে বাসন পাতলা হয়ে যেতে পারে।

  • কাঠের ভর্তা বাটা হাতল

    Sold By: Sohozeto

    কাঠের বাসন পরিষ্কার রাখার উপায়


    লেবুর রস

    গরম পানিতে লেবুর রস মেশান। ওই মিশ্রণের মধ্যে কাঠের বাসনগুলি ১৫ মিনিট ভিজিয়ে রাখুন। তারপর লেবুর জল থেকে তুলে শুকনো কাপড় দিয়ে মুছে রোদে শুকোতে দিলেই বাসনের দাগ, গন্ধ সব দূর হয়ে যাবে।

    লবণ

    গরম পানির সঙ্গে লবণ মিশিয়ে কাঠের বাসনগুলি পাঁচ মিনিট ভিজিয়ে রাখুন। এবার জল থেকে তুলে কাপড় দিয়ে ভালো করে মুছে সূর্যের আলোতে শুকিয়ে নিলেই বাসন অনেকদিন ভালো থাকবে।

    হলুদ

    প্রথমে কাঠের বাসনগুলি পানি দিয়ে ভিজিয়ে রাখুন। তারপর লেবুর রস ও হলুদ দিয়ে ঘষলেই কাঠের বাসন পরিষ্কার হয়ে যাবে।

    বেকিং সোডা

    লেবুর রসের সঙ্গে বেকিং সোডা মিশিয়ে একটি পেস্ট তৈরি করুন। এবার এই পেস্টটি কাঠের বাসনগুলিতে ১৫ মিনিট লাগিয়ে রোদে শুকোতে দিন। এবার গরম পানি দিয়ে ভালো করে বাসন ধুয়ে ফেললেই কাঠের বাসনের দাগ উঠে যাবে।

    ভিনিগার

    প্রথমে একটি বাটিতে এক চামচ ভিনিগার ও এক টেবিল চামচ মধু মেশান। এরপর এতে একটি সুতির কাপড় ভিজিয়ে বাসনগুলি মুছে নিন। এবার বাসনগুলি শুকিয়ে নিলেই বাসনগুলি নতুনের মতো মনে হবে।

    গরম পানি

    কাঠের চামচে রান্না করার সময় অনেকটা খাবার লেগে যায় চামচে। তাই এগুলি দিয়ে রান্না করার পর গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেললে আপনাকে এর জন্য আর বাড়তি ঝামেলায় পড়তে হবে না।

    শিরিষ কাগজ

    যদি কাঠের বাসনের নাছোড়বান্দা দাগ একদমই উঠতে না চায় তাহলে শিরিষ কাগজ দিয়ে ঘষলেই দাগ উঠে যাবে। কিন্তু বারবার শিরিষ কাগজ ব্যবহার না করাই ভালো। কারণ এতে বাসন পাতলা হয়ে যেতে পারে।

  • কাঠের সের-(ছোট)

    Sold By: Sohozeto

    কাঠের বাসন পরিষ্কার রাখার উপায়


    লেবুর রস

    গরম পানিতে লেবুর রস মেশান। ওই মিশ্রণের মধ্যে কাঠের বাসনগুলি ১৫ মিনিট ভিজিয়ে রাখুন। তারপর লেবুর জল থেকে তুলে শুকনো কাপড় দিয়ে মুছে রোদে শুকোতে দিলেই বাসনের দাগ, গন্ধ সব দূর হয়ে যাবে।

    লবণ

    গরম পানির সঙ্গে লবণ মিশিয়ে কাঠের বাসনগুলি পাঁচ মিনিট ভিজিয়ে রাখুন। এবার জল থেকে তুলে কাপড় দিয়ে ভালো করে মুছে সূর্যের আলোতে শুকিয়ে নিলেই বাসন অনেকদিন ভালো থাকবে।

    হলুদ

    প্রথমে কাঠের বাসনগুলি পানি দিয়ে ভিজিয়ে রাখুন। তারপর লেবুর রস ও হলুদ দিয়ে ঘষলেই কাঠের বাসন পরিষ্কার হয়ে যাবে।

    বেকিং সোডা

    লেবুর রসের সঙ্গে বেকিং সোডা মিশিয়ে একটি পেস্ট তৈরি করুন। এবার এই পেস্টটি কাঠের বাসনগুলিতে ১৫ মিনিট লাগিয়ে রোদে শুকোতে দিন। এবার গরম পানি দিয়ে ভালো করে বাসন ধুয়ে ফেললেই কাঠের বাসনের দাগ উঠে যাবে।

    ভিনিগার

    প্রথমে একটি বাটিতে এক চামচ ভিনিগার ও এক টেবিল চামচ মধু মেশান। এরপর এতে একটি সুতির কাপড় ভিজিয়ে বাসনগুলি মুছে নিন। এবার বাসনগুলি শুকিয়ে নিলেই বাসনগুলি নতুনের মতো মনে হবে।

    গরম পানি

    কাঠের চামচে রান্না করার সময় অনেকটা খাবার লেগে যায় চামচে। তাই এগুলি দিয়ে রান্না করার পর গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেললে আপনাকে এর জন্য আর বাড়তি ঝামেলায় পড়তে হবে না।

    শিরিষ কাগজ

    যদি কাঠের বাসনের নাছোড়বান্দা দাগ একদমই উঠতে না চায় তাহলে শিরিষ কাগজ দিয়ে ঘষলেই দাগ উঠে যাবে। কিন্তু বারবার শিরিষ কাগজ ব্যবহার না করাই ভালো। কারণ এতে বাসন পাতলা হয়ে যেতে পারে।

  • কাঠের সের-(বড়)

    Sold By: Sohozeto

    কাঠের বাসন পরিষ্কার রাখার উপায়


    লেবুর রস

    গরম পানিতে লেবুর রস মেশান। ওই মিশ্রণের মধ্যে কাঠের বাসনগুলি ১৫ মিনিট ভিজিয়ে রাখুন। তারপর লেবুর জল থেকে তুলে শুকনো কাপড় দিয়ে মুছে রোদে শুকোতে দিলেই বাসনের দাগ, গন্ধ সব দূর হয়ে যাবে।

    লবণ

    গরম পানির সঙ্গে লবণ মিশিয়ে কাঠের বাসনগুলি পাঁচ মিনিট ভিজিয়ে রাখুন। এবার জল থেকে তুলে কাপড় দিয়ে ভালো করে মুছে সূর্যের আলোতে শুকিয়ে নিলেই বাসন অনেকদিন ভালো থাকবে।

    হলুদ

    প্রথমে কাঠের বাসনগুলি পানি দিয়ে ভিজিয়ে রাখুন। তারপর লেবুর রস ও হলুদ দিয়ে ঘষলেই কাঠের বাসন পরিষ্কার হয়ে যাবে।

    বেকিং সোডা

    লেবুর রসের সঙ্গে বেকিং সোডা মিশিয়ে একটি পেস্ট তৈরি করুন। এবার এই পেস্টটি কাঠের বাসনগুলিতে ১৫ মিনিট লাগিয়ে রোদে শুকোতে দিন। এবার গরম পানি দিয়ে ভালো করে বাসন ধুয়ে ফেললেই কাঠের বাসনের দাগ উঠে যাবে।

    ভিনিগার

    প্রথমে একটি বাটিতে এক চামচ ভিনিগার ও এক টেবিল চামচ মধু মেশান। এরপর এতে একটি সুতির কাপড় ভিজিয়ে বাসনগুলি মুছে নিন। এবার বাসনগুলি শুকিয়ে নিলেই বাসনগুলি নতুনের মতো মনে হবে।

    গরম পানি

    কাঠের চামচে রান্না করার সময় অনেকটা খাবার লেগে যায় চামচে। তাই এগুলি দিয়ে রান্না করার পর গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেললে আপনাকে এর জন্য আর বাড়তি ঝামেলায় পড়তে হবে না।

    শিরিষ কাগজ

    যদি কাঠের বাসনের নাছোড়বান্দা দাগ একদমই উঠতে না চায় তাহলে শিরিষ কাগজ দিয়ে ঘষলেই দাগ উঠে যাবে। কিন্তু বারবার শিরিষ কাগজ ব্যবহার না করাই ভালো। কারণ এতে বাসন পাতলা হয়ে যেতে পারে।

    Sold By: Sohozeto

    কাঠের সের-(বড়)

    ৳ 100৳ 120