• কাঠের ভর্তা বাটা হাতল

    Sold By: Sohozeto

    কাঠের বাসন পরিষ্কার রাখার উপায়


    লেবুর রস

    গরম পানিতে লেবুর রস মেশান। ওই মিশ্রণের মধ্যে কাঠের বাসনগুলি ১৫ মিনিট ভিজিয়ে রাখুন। তারপর লেবুর জল থেকে তুলে শুকনো কাপড় দিয়ে মুছে রোদে শুকোতে দিলেই বাসনের দাগ, গন্ধ সব দূর হয়ে যাবে।

    লবণ

    গরম পানির সঙ্গে লবণ মিশিয়ে কাঠের বাসনগুলি পাঁচ মিনিট ভিজিয়ে রাখুন। এবার জল থেকে তুলে কাপড় দিয়ে ভালো করে মুছে সূর্যের আলোতে শুকিয়ে নিলেই বাসন অনেকদিন ভালো থাকবে।

    হলুদ

    প্রথমে কাঠের বাসনগুলি পানি দিয়ে ভিজিয়ে রাখুন। তারপর লেবুর রস ও হলুদ দিয়ে ঘষলেই কাঠের বাসন পরিষ্কার হয়ে যাবে।

    বেকিং সোডা

    লেবুর রসের সঙ্গে বেকিং সোডা মিশিয়ে একটি পেস্ট তৈরি করুন। এবার এই পেস্টটি কাঠের বাসনগুলিতে ১৫ মিনিট লাগিয়ে রোদে শুকোতে দিন। এবার গরম পানি দিয়ে ভালো করে বাসন ধুয়ে ফেললেই কাঠের বাসনের দাগ উঠে যাবে।

    ভিনিগার

    প্রথমে একটি বাটিতে এক চামচ ভিনিগার ও এক টেবিল চামচ মধু মেশান। এরপর এতে একটি সুতির কাপড় ভিজিয়ে বাসনগুলি মুছে নিন। এবার বাসনগুলি শুকিয়ে নিলেই বাসনগুলি নতুনের মতো মনে হবে।

    গরম পানি

    কাঠের চামচে রান্না করার সময় অনেকটা খাবার লেগে যায় চামচে। তাই এগুলি দিয়ে রান্না করার পর গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেললে আপনাকে এর জন্য আর বাড়তি ঝামেলায় পড়তে হবে না।

    শিরিষ কাগজ

    যদি কাঠের বাসনের নাছোড়বান্দা দাগ একদমই উঠতে না চায় তাহলে শিরিষ কাগজ দিয়ে ঘষলেই দাগ উঠে যাবে। কিন্তু বারবার শিরিষ কাগজ ব্যবহার না করাই ভালো। কারণ এতে বাসন পাতলা হয়ে যেতে পারে।

  • কাঠের সের-(ছোট)

    Sold By: Sohozeto

    কাঠের বাসন পরিষ্কার রাখার উপায়


    লেবুর রস

    গরম পানিতে লেবুর রস মেশান। ওই মিশ্রণের মধ্যে কাঠের বাসনগুলি ১৫ মিনিট ভিজিয়ে রাখুন। তারপর লেবুর জল থেকে তুলে শুকনো কাপড় দিয়ে মুছে রোদে শুকোতে দিলেই বাসনের দাগ, গন্ধ সব দূর হয়ে যাবে।

    লবণ

    গরম পানির সঙ্গে লবণ মিশিয়ে কাঠের বাসনগুলি পাঁচ মিনিট ভিজিয়ে রাখুন। এবার জল থেকে তুলে কাপড় দিয়ে ভালো করে মুছে সূর্যের আলোতে শুকিয়ে নিলেই বাসন অনেকদিন ভালো থাকবে।

    হলুদ

    প্রথমে কাঠের বাসনগুলি পানি দিয়ে ভিজিয়ে রাখুন। তারপর লেবুর রস ও হলুদ দিয়ে ঘষলেই কাঠের বাসন পরিষ্কার হয়ে যাবে।

    বেকিং সোডা

    লেবুর রসের সঙ্গে বেকিং সোডা মিশিয়ে একটি পেস্ট তৈরি করুন। এবার এই পেস্টটি কাঠের বাসনগুলিতে ১৫ মিনিট লাগিয়ে রোদে শুকোতে দিন। এবার গরম পানি দিয়ে ভালো করে বাসন ধুয়ে ফেললেই কাঠের বাসনের দাগ উঠে যাবে।

    ভিনিগার

    প্রথমে একটি বাটিতে এক চামচ ভিনিগার ও এক টেবিল চামচ মধু মেশান। এরপর এতে একটি সুতির কাপড় ভিজিয়ে বাসনগুলি মুছে নিন। এবার বাসনগুলি শুকিয়ে নিলেই বাসনগুলি নতুনের মতো মনে হবে।

    গরম পানি

    কাঠের চামচে রান্না করার সময় অনেকটা খাবার লেগে যায় চামচে। তাই এগুলি দিয়ে রান্না করার পর গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেললে আপনাকে এর জন্য আর বাড়তি ঝামেলায় পড়তে হবে না।

    শিরিষ কাগজ

    যদি কাঠের বাসনের নাছোড়বান্দা দাগ একদমই উঠতে না চায় তাহলে শিরিষ কাগজ দিয়ে ঘষলেই দাগ উঠে যাবে। কিন্তু বারবার শিরিষ কাগজ ব্যবহার না করাই ভালো। কারণ এতে বাসন পাতলা হয়ে যেতে পারে।

  • কাঠের সের-(বড়)

    Sold By: Sohozeto

    কাঠের বাসন পরিষ্কার রাখার উপায়


    লেবুর রস

    গরম পানিতে লেবুর রস মেশান। ওই মিশ্রণের মধ্যে কাঠের বাসনগুলি ১৫ মিনিট ভিজিয়ে রাখুন। তারপর লেবুর জল থেকে তুলে শুকনো কাপড় দিয়ে মুছে রোদে শুকোতে দিলেই বাসনের দাগ, গন্ধ সব দূর হয়ে যাবে।

    লবণ

    গরম পানির সঙ্গে লবণ মিশিয়ে কাঠের বাসনগুলি পাঁচ মিনিট ভিজিয়ে রাখুন। এবার জল থেকে তুলে কাপড় দিয়ে ভালো করে মুছে সূর্যের আলোতে শুকিয়ে নিলেই বাসন অনেকদিন ভালো থাকবে।

    হলুদ

    প্রথমে কাঠের বাসনগুলি পানি দিয়ে ভিজিয়ে রাখুন। তারপর লেবুর রস ও হলুদ দিয়ে ঘষলেই কাঠের বাসন পরিষ্কার হয়ে যাবে।

    বেকিং সোডা

    লেবুর রসের সঙ্গে বেকিং সোডা মিশিয়ে একটি পেস্ট তৈরি করুন। এবার এই পেস্টটি কাঠের বাসনগুলিতে ১৫ মিনিট লাগিয়ে রোদে শুকোতে দিন। এবার গরম পানি দিয়ে ভালো করে বাসন ধুয়ে ফেললেই কাঠের বাসনের দাগ উঠে যাবে।

    ভিনিগার

    প্রথমে একটি বাটিতে এক চামচ ভিনিগার ও এক টেবিল চামচ মধু মেশান। এরপর এতে একটি সুতির কাপড় ভিজিয়ে বাসনগুলি মুছে নিন। এবার বাসনগুলি শুকিয়ে নিলেই বাসনগুলি নতুনের মতো মনে হবে।

    গরম পানি

    কাঠের চামচে রান্না করার সময় অনেকটা খাবার লেগে যায় চামচে। তাই এগুলি দিয়ে রান্না করার পর গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেললে আপনাকে এর জন্য আর বাড়তি ঝামেলায় পড়তে হবে না।

    শিরিষ কাগজ

    যদি কাঠের বাসনের নাছোড়বান্দা দাগ একদমই উঠতে না চায় তাহলে শিরিষ কাগজ দিয়ে ঘষলেই দাগ উঠে যাবে। কিন্তু বারবার শিরিষ কাগজ ব্যবহার না করাই ভালো। কারণ এতে বাসন পাতলা হয়ে যেতে পারে।

    Sold By: Sohozeto

    কাঠের সের-(বড়)

    ৳ 100৳ 120
  • কাঠের ফুল দানি

    Sold By: Sohozeto

    কাঠের বাসন পরিষ্কার রাখার উপায়


    লেবুর রস

    গরম পানিতে লেবুর রস মেশান। ওই মিশ্রণের মধ্যে কাঠের বাসনগুলি ১৫ মিনিট ভিজিয়ে রাখুন। তারপর লেবুর জল থেকে তুলে শুকনো কাপড় দিয়ে মুছে রোদে শুকোতে দিলেই বাসনের দাগ, গন্ধ সব দূর হয়ে যাবে।

    লবণ

    গরম পানির সঙ্গে লবণ মিশিয়ে কাঠের বাসনগুলি পাঁচ মিনিট ভিজিয়ে রাখুন। এবার জল থেকে তুলে কাপড় দিয়ে ভালো করে মুছে সূর্যের আলোতে শুকিয়ে নিলেই বাসন অনেকদিন ভালো থাকবে।

    হলুদ

    প্রথমে কাঠের বাসনগুলি পানি দিয়ে ভিজিয়ে রাখুন। তারপর লেবুর রস ও হলুদ দিয়ে ঘষলেই কাঠের বাসন পরিষ্কার হয়ে যাবে।

    বেকিং সোডা

    লেবুর রসের সঙ্গে বেকিং সোডা মিশিয়ে একটি পেস্ট তৈরি করুন। এবার এই পেস্টটি কাঠের বাসনগুলিতে ১৫ মিনিট লাগিয়ে রোদে শুকোতে দিন। এবার গরম পানি দিয়ে ভালো করে বাসন ধুয়ে ফেললেই কাঠের বাসনের দাগ উঠে যাবে।

    ভিনিগার

    প্রথমে একটি বাটিতে এক চামচ ভিনিগার ও এক টেবিল চামচ মধু মেশান। এরপর এতে একটি সুতির কাপড় ভিজিয়ে বাসনগুলি মুছে নিন। এবার বাসনগুলি শুকিয়ে নিলেই বাসনগুলি নতুনের মতো মনে হবে।

    গরম পানি

    কাঠের চামচে রান্না করার সময় অনেকটা খাবার লেগে যায় চামচে। তাই এগুলি দিয়ে রান্না করার পর গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেললে আপনাকে এর জন্য আর বাড়তি ঝামেলায় পড়তে হবে না।

    শিরিষ কাগজ

    যদি কাঠের বাসনের নাছোড়বান্দা দাগ একদমই উঠতে না চায় তাহলে শিরিষ কাগজ দিয়ে ঘষলেই দাগ উঠে যাবে। কিন্তু বারবার শিরিষ কাগজ ব্যবহার না করাই ভালো। কারণ এতে বাসন পাতলা হয়ে যেতে পারে।

  • ঝাড় বাতি-(ঝুড়ি) with amazing Lighting

    Sold By: Sohozeto

    কাঠের বাসন পরিষ্কার রাখার উপায়


    লেবুর রস

    গরম পানিতে লেবুর রস মেশান। ওই মিশ্রণের মধ্যে কাঠের বাসনগুলি ১৫ মিনিট ভিজিয়ে রাখুন। তারপর লেবুর জল থেকে তুলে শুকনো কাপড় দিয়ে মুছে রোদে শুকোতে দিলেই বাসনের দাগ, গন্ধ সব দূর হয়ে যাবে।

    লবণ

    গরম পানির সঙ্গে লবণ মিশিয়ে কাঠের বাসনগুলি পাঁচ মিনিট ভিজিয়ে রাখুন। এবার জল থেকে তুলে কাপড় দিয়ে ভালো করে মুছে সূর্যের আলোতে শুকিয়ে নিলেই বাসন অনেকদিন ভালো থাকবে।

    হলুদ

    প্রথমে কাঠের বাসনগুলি পানি দিয়ে ভিজিয়ে রাখুন। তারপর লেবুর রস ও হলুদ দিয়ে ঘষলেই কাঠের বাসন পরিষ্কার হয়ে যাবে।

    বেকিং সোডা

    লেবুর রসের সঙ্গে বেকিং সোডা মিশিয়ে একটি পেস্ট তৈরি করুন। এবার এই পেস্টটি কাঠের বাসনগুলিতে ১৫ মিনিট লাগিয়ে রোদে শুকোতে দিন। এবার গরম পানি দিয়ে ভালো করে বাসন ধুয়ে ফেললেই কাঠের বাসনের দাগ উঠে যাবে।

    ভিনিগার

    প্রথমে একটি বাটিতে এক চামচ ভিনিগার ও এক টেবিল চামচ মধু মেশান। এরপর এতে একটি সুতির কাপড় ভিজিয়ে বাসনগুলি মুছে নিন। এবার বাসনগুলি শুকিয়ে নিলেই বাসনগুলি নতুনের মতো মনে হবে।

    গরম পানি

    কাঠের চামচে রান্না করার সময় অনেকটা খাবার লেগে যায় চামচে। তাই এগুলি দিয়ে রান্না করার পর গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেললে আপনাকে এর জন্য আর বাড়তি ঝামেলায় পড়তে হবে না।

    শিরিষ কাগজ

    যদি কাঠের বাসনের নাছোড়বান্দা দাগ একদমই উঠতে না চায় তাহলে শিরিষ কাগজ দিয়ে ঘষলেই দাগ উঠে যাবে। কিন্তু বারবার শিরিষ কাগজ ব্যবহার না করাই ভালো। কারণ এতে বাসন পাতলা হয়ে যেতে পারে।

  • কাঠের হামান দিস্তা- (ছোট)

    Sold By: Sohozeto

    কাঠের বাসন পরিষ্কার রাখার উপায়

    লেবুর রস

    গরম পানিতে লেবুর রস মেশান। ওই মিশ্রণের মধ্যে কাঠের বাসনগুলি ১৫ মিনিট ভিজিয়ে রাখুন। তারপর লেবুর জল থেকে তুলে শুকনো কাপড় দিয়ে মুছে রোদে শুকোতে দিলেই বাসনের দাগ, গন্ধ সব দূর হয়ে যাবে।

    লবণ

    গরম পানির সঙ্গে লবণ মিশিয়ে কাঠের বাসনগুলি পাঁচ মিনিট ভিজিয়ে রাখুন। এবার জল থেকে তুলে কাপড় দিয়ে ভালো করে মুছে সূর্যের আলোতে শুকিয়ে নিলেই বাসন অনেকদিন ভালো থাকবে।

    হলুদ

    প্রথমে কাঠের বাসনগুলি পানি দিয়ে ভিজিয়ে রাখুন। তারপর লেবুর রস ও হলুদ দিয়ে ঘষলেই কাঠের বাসন পরিষ্কার হয়ে যাবে।

    বেকিং সোডা

    লেবুর রসের সঙ্গে বেকিং সোডা মিশিয়ে একটি পেস্ট তৈরি করুন। এবার এই পেস্টটি কাঠের বাসনগুলিতে ১৫ মিনিট লাগিয়ে রোদে শুকোতে দিন। এবার গরম পানি দিয়ে ভালো করে বাসন ধুয়ে ফেললেই কাঠের বাসনের দাগ উঠে যাবে।

    ভিনিগার

    প্রথমে একটি বাটিতে এক চামচ ভিনিগার ও এক টেবিল চামচ মধু মেশান। এরপর এতে একটি সুতির কাপড় ভিজিয়ে বাসনগুলি মুছে নিন। এবার বাসনগুলি শুকিয়ে নিলেই বাসনগুলি নতুনের মতো মনে হবে।

    গরম পানি

    কাঠের চামচে রান্না করার সময় অনেকটা খাবার লেগে যায় চামচে। তাই এগুলি দিয়ে রান্না করার পর গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেললে আপনাকে এর জন্য আর বাড়তি ঝামেলায় পড়তে হবে না।

    শিরিষ কাগজ

    যদি কাঠের বাসনের নাছোড়বান্দা দাগ একদমই উঠতে না চায় তাহলে শিরিষ কাগজ দিয়ে ঘষলেই দাগ উঠে যাবে। কিন্তু বারবার শিরিষ কাগজ ব্যবহার না করাই ভালো। কারণ এতে বাসন পাতলা হয়ে যেতে পারে।

  • কাঠের হামান দিস্তা(বড়)

    Sold By: Sohozeto

    কাঠের বাসন পরিষ্কার রাখার উপায়

    লেবুর রস

    গরম পানিতে লেবুর রস মেশান। ওই মিশ্রণের মধ্যে কাঠের বাসনগুলি ১৫ মিনিট ভিজিয়ে রাখুন। তারপর লেবুর জল থেকে তুলে শুকনো কাপড় দিয়ে মুছে রোদে শুকোতে দিলেই বাসনের দাগ, গন্ধ সব দূর হয়ে যাবে।

    লবণ

    গরম পানির সঙ্গে লবণ মিশিয়ে কাঠের বাসনগুলি পাঁচ মিনিট ভিজিয়ে রাখুন। এবার জল থেকে তুলে কাপড় দিয়ে ভালো করে মুছে সূর্যের আলোতে শুকিয়ে নিলেই বাসন অনেকদিন ভালো থাকবে।

    হলুদ

    প্রথমে কাঠের বাসনগুলি পানি দিয়ে ভিজিয়ে রাখুন। তারপর লেবুর রস ও হলুদ দিয়ে ঘষলেই কাঠের বাসন পরিষ্কার হয়ে যাবে।

    বেকিং সোডা

    লেবুর রসের সঙ্গে বেকিং সোডা মিশিয়ে একটি পেস্ট তৈরি করুন। এবার এই পেস্টটি কাঠের বাসনগুলিতে ১৫ মিনিট লাগিয়ে রোদে শুকোতে দিন। এবার গরম পানি দিয়ে ভালো করে বাসন ধুয়ে ফেললেই কাঠের বাসনের দাগ উঠে যাবে।

    ভিনিগার

    প্রথমে একটি বাটিতে এক চামচ ভিনিগার ও এক টেবিল চামচ মধু মেশান। এরপর এতে একটি সুতির কাপড় ভিজিয়ে বাসনগুলি মুছে নিন। এবার বাসনগুলি শুকিয়ে নিলেই বাসনগুলি নতুনের মতো মনে হবে।

    গরম পানি

    কাঠের চামচে রান্না করার সময় অনেকটা খাবার লেগে যায় চামচে। তাই এগুলি দিয়ে রান্না করার পর গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেললে আপনাকে এর জন্য আর বাড়তি ঝামেলায় পড়তে হবে না।

    শিরিষ কাগজ

    যদি কাঠের বাসনের নাছোড়বান্দা দাগ একদমই উঠতে না চায় তাহলে শিরিষ কাগজ দিয়ে ঘষলেই দাগ উঠে যাবে। কিন্তু বারবার শিরিষ কাগজ ব্যবহার না করাই ভালো। কারণ এতে বাসন পাতলা হয়ে যেতে পারে।

  • কাঠের ব্যাংক

    Sold By: Sohozeto

     

    কাঠের বাসন পরিষ্কার রাখার উপায়

    লেবুর রস

    গরম পানিতে লেবুর রস মেশান। ওই মিশ্রণের মধ্যে কাঠের বাসনগুলি ১৫ মিনিট ভিজিয়ে রাখুন। তারপর লেবুর জল থেকে তুলে শুকনো কাপড় দিয়ে মুছে রোদে শুকোতে দিলেই বাসনের দাগ, গন্ধ সব দূর হয়ে যাবে।

    লবণ

    গরম পানির সঙ্গে লবণ মিশিয়ে কাঠের বাসনগুলি পাঁচ মিনিট ভিজিয়ে রাখুন। এবার জল থেকে তুলে কাপড় দিয়ে ভালো করে মুছে সূর্যের আলোতে শুকিয়ে নিলেই বাসন অনেকদিন ভালো থাকবে।

    হলুদ

    প্রথমে কাঠের বাসনগুলি পানি দিয়ে ভিজিয়ে রাখুন। তারপর লেবুর রস ও হলুদ দিয়ে ঘষলেই কাঠের বাসন পরিষ্কার হয়ে যাবে।

    বেকিং সোডা

    লেবুর রসের সঙ্গে বেকিং সোডা মিশিয়ে একটি পেস্ট তৈরি করুন। এবার এই পেস্টটি কাঠের বাসনগুলিতে ১৫ মিনিট লাগিয়ে রোদে শুকোতে দিন। এবার গরম পানি দিয়ে ভালো করে বাসন ধুয়ে ফেললেই কাঠের বাসনের দাগ উঠে যাবে।

    ভিনিগার

    প্রথমে একটি বাটিতে এক চামচ ভিনিগার ও এক টেবিল চামচ মধু মেশান। এরপর এতে একটি সুতির কাপড় ভিজিয়ে বাসনগুলি মুছে নিন। এবার বাসনগুলি শুকিয়ে নিলেই বাসনগুলি নতুনের মতো মনে হবে।

    গরম পানি

    কাঠের চামচে রান্না করার সময় অনেকটা খাবার লেগে যায় চামচে। তাই এগুলি দিয়ে রান্না করার পর গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেললে আপনাকে এর জন্য আর বাড়তি ঝামেলায় পড়তে হবে না।

    শিরিষ কাগজ

    যদি কাঠের বাসনের নাছোড়বান্দা দাগ একদমই উঠতে না চায় তাহলে শিরিষ কাগজ দিয়ে ঘষলেই দাগ উঠে যাবে। কিন্তু বারবার শিরিষ কাগজ ব্যবহার না করাই ভালো। কারণ এতে বাসন পাতলা হয়ে যেতে পারে।

    Sold By: Sohozeto

    কাঠের ব্যাংক

    ৳ 100৳ 120
  • কাঠের আংটি বক্স-(ছোট)

    Sold By: Sohozeto

     

    কাঠের বাসন পরিষ্কার রাখার উপায়

    লেবুর রস

    গরম পানিতে লেবুর রস মেশান। ওই মিশ্রণের মধ্যে কাঠের বাসনগুলি ১৫ মিনিট ভিজিয়ে রাখুন। তারপর লেবুর জল থেকে তুলে শুকনো কাপড় দিয়ে মুছে রোদে শুকোতে দিলেই বাসনের দাগ, গন্ধ সব দূর হয়ে যাবে।

    লবণ

    গরম পানির সঙ্গে লবণ মিশিয়ে কাঠের বাসনগুলি পাঁচ মিনিট ভিজিয়ে রাখুন। এবার জল থেকে তুলে কাপড় দিয়ে ভালো করে মুছে সূর্যের আলোতে শুকিয়ে নিলেই বাসন অনেকদিন ভালো থাকবে।

    হলুদ

    প্রথমে কাঠের বাসনগুলি পানি দিয়ে ভিজিয়ে রাখুন। তারপর লেবুর রস ও হলুদ দিয়ে ঘষলেই কাঠের বাসন পরিষ্কার হয়ে যাবে।

    বেকিং সোডা

    লেবুর রসের সঙ্গে বেকিং সোডা মিশিয়ে একটি পেস্ট তৈরি করুন। এবার এই পেস্টটি কাঠের বাসনগুলিতে ১৫ মিনিট লাগিয়ে রোদে শুকোতে দিন। এবার গরম পানি দিয়ে ভালো করে বাসন ধুয়ে ফেললেই কাঠের বাসনের দাগ উঠে যাবে।

    ভিনিগার

    প্রথমে একটি বাটিতে এক চামচ ভিনিগার ও এক টেবিল চামচ মধু মেশান। এরপর এতে একটি সুতির কাপড় ভিজিয়ে বাসনগুলি মুছে নিন। এবার বাসনগুলি শুকিয়ে নিলেই বাসনগুলি নতুনের মতো মনে হবে।

    গরম পানি

    কাঠের চামচে রান্না করার সময় অনেকটা খাবার লেগে যায় চামচে। তাই এগুলি দিয়ে রান্না করার পর গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেললে আপনাকে এর জন্য আর বাড়তি ঝামেলায় পড়তে হবে না।

    শিরিষ কাগজ

    যদি কাঠের বাসনের নাছোড়বান্দা দাগ একদমই উঠতে না চায় তাহলে শিরিষ কাগজ দিয়ে ঘষলেই দাগ উঠে যাবে। কিন্তু বারবার শিরিষ কাগজ ব্যবহার না করাই ভালো। কারণ এতে বাসন পাতলা হয়ে যেতে পারে।

  • কাঠের আংটি বক্স(বড়)

    Sold By: Sohozeto

    কাঠের বাসন পরিষ্কার রাখার উপায়


    লেবুর রস

    গরম পানিতে লেবুর রস মেশান। ওই মিশ্রণের মধ্যে কাঠের বাসনগুলি ১৫ মিনিট ভিজিয়ে রাখুন। তারপর লেবুর জল থেকে তুলে শুকনো কাপড় দিয়ে মুছে রোদে শুকোতে দিলেই বাসনের দাগ, গন্ধ সব দূর হয়ে যাবে।

    লবণ

    গরম পানির সঙ্গে লবণ মিশিয়ে কাঠের বাসনগুলি পাঁচ মিনিট ভিজিয়ে রাখুন। এবার জল থেকে তুলে কাপড় দিয়ে ভালো করে মুছে সূর্যের আলোতে শুকিয়ে নিলেই বাসন অনেকদিন ভালো থাকবে।

    হলুদ

    প্রথমে কাঠের বাসনগুলি পানি দিয়ে ভিজিয়ে রাখুন। তারপর লেবুর রস ও হলুদ দিয়ে ঘষলেই কাঠের বাসন পরিষ্কার হয়ে যাবে।

    বেকিং সোডা

    লেবুর রসের সঙ্গে বেকিং সোডা মিশিয়ে একটি পেস্ট তৈরি করুন। এবার এই পেস্টটি কাঠের বাসনগুলিতে ১৫ মিনিট লাগিয়ে রোদে শুকোতে দিন। এবার গরম পানি দিয়ে ভালো করে বাসন ধুয়ে ফেললেই কাঠের বাসনের দাগ উঠে যাবে।

    ভিনিগার

    প্রথমে একটি বাটিতে এক চামচ ভিনিগার ও এক টেবিল চামচ মধু মেশান। এরপর এতে একটি সুতির কাপড় ভিজিয়ে বাসনগুলি মুছে নিন। এবার বাসনগুলি শুকিয়ে নিলেই বাসনগুলি নতুনের মতো মনে হবে।

    গরম পানি

    কাঠের চামচে রান্না করার সময় অনেকটা খাবার লেগে যায় চামচে। তাই এগুলি দিয়ে রান্না করার পর গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেললে আপনাকে এর জন্য আর বাড়তি ঝামেলায় পড়তে হবে না।

    শিরিষ কাগজ

    যদি কাঠের বাসনের নাছোড়বান্দা দাগ একদমই উঠতে না চায় তাহলে শিরিষ কাগজ দিয়ে ঘষলেই দাগ উঠে যাবে। কিন্তু বারবার শিরিষ কাগজ ব্যবহার না করাই ভালো। কারণ এতে বাসন পাতলা হয়ে যেতে পারে।

  • কাঠের টেবিল ম্যাট-(গরম পাতিল রাখার জন্য)

    Sold By: Sohozeto

    কাঠের বাসন পরিষ্কার রাখার উপায়


    লেবুর রস

    গরম পানিতে লেবুর রস মেশান। ওই মিশ্রণের মধ্যে কাঠের বাসনগুলি ১৫ মিনিট ভিজিয়ে রাখুন। তারপর লেবুর জল থেকে তুলে শুকনো কাপড় দিয়ে মুছে রোদে শুকোতে দিলেই বাসনের দাগ, গন্ধ সব দূর হয়ে যাবে।

    লবণ

    গরম পানির সঙ্গে লবণ মিশিয়ে কাঠের বাসনগুলি পাঁচ মিনিট ভিজিয়ে রাখুন। এবার জল থেকে তুলে কাপড় দিয়ে ভালো করে মুছে সূর্যের আলোতে শুকিয়ে নিলেই বাসন অনেকদিন ভালো থাকবে।

    হলুদ

    প্রথমে কাঠের বাসনগুলি পানি দিয়ে ভিজিয়ে রাখুন। তারপর লেবুর রস ও হলুদ দিয়ে ঘষলেই কাঠের বাসন পরিষ্কার হয়ে যাবে।

    বেকিং সোডা

    লেবুর রসের সঙ্গে বেকিং সোডা মিশিয়ে একটি পেস্ট তৈরি করুন। এবার এই পেস্টটি কাঠের বাসনগুলিতে ১৫ মিনিট লাগিয়ে রোদে শুকোতে দিন। এবার গরম পানি দিয়ে ভালো করে বাসন ধুয়ে ফেললেই কাঠের বাসনের দাগ উঠে যাবে।

    ভিনিগার

    প্রথমে একটি বাটিতে এক চামচ ভিনিগার ও এক টেবিল চামচ মধু মেশান। এরপর এতে একটি সুতির কাপড় ভিজিয়ে বাসনগুলি মুছে নিন। এবার বাসনগুলি শুকিয়ে নিলেই বাসনগুলি নতুনের মতো মনে হবে।

    গরম পানি

    কাঠের চামচে রান্না করার সময় অনেকটা খাবার লেগে যায় চামচে। তাই এগুলি দিয়ে রান্না করার পর গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেললে আপনাকে এর জন্য আর বাড়তি ঝামেলায় পড়তে হবে না।

    শিরিষ কাগজ

    যদি কাঠের বাসনের নাছোড়বান্দা দাগ একদমই উঠতে না চায় তাহলে শিরিষ কাগজ দিয়ে ঘষলেই দাগ উঠে যাবে। কিন্তু বারবার শিরিষ কাগজ ব্যবহার না করাই ভালো। কারণ এতে বাসন পাতলা হয়ে যেতে পারে।

  • নারকেলের মালার তৈরি চায়ের কাপ

    Sold By: Sohozeto

    কাঠের বাসন পরিষ্কার রাখার উপায়

    লেবুর রস

    গরম পানিতে লেবুর রস মেশান। ওই মিশ্রণের মধ্যে কাঠের বাসনগুলি ১৫ মিনিট ভিজিয়ে রাখুন। তারপর লেবুর জল থেকে তুলে শুকনো কাপড় দিয়ে মুছে রোদে শুকোতে দিলেই বাসনের দাগ, গন্ধ সব দূর হয়ে যাবে।

    লবণ

    গরম পানির সঙ্গে লবণ মিশিয়ে কাঠের বাসনগুলি পাঁচ মিনিট ভিজিয়ে রাখুন। এবার জল থেকে তুলে কাপড় দিয়ে ভালো করে মুছে সূর্যের আলোতে শুকিয়ে নিলেই বাসন অনেকদিন ভালো থাকবে।

    হলুদ

    প্রথমে কাঠের বাসনগুলি পানি দিয়ে ভিজিয়ে রাখুন। তারপর লেবুর রস ও হলুদ দিয়ে ঘষলেই কাঠের বাসন পরিষ্কার হয়ে যাবে।

    বেকিং সোডা

    লেবুর রসের সঙ্গে বেকিং সোডা মিশিয়ে একটি পেস্ট তৈরি করুন। এবার এই পেস্টটি কাঠের বাসনগুলিতে ১৫ মিনিট লাগিয়ে রোদে শুকোতে দিন। এবার গরম পানি দিয়ে ভালো করে বাসন ধুয়ে ফেললেই কাঠের বাসনের দাগ উঠে যাবে।

    ভিনিগার

    প্রথমে একটি বাটিতে এক চামচ ভিনিগার ও এক টেবিল চামচ মধু মেশান। এরপর এতে একটি সুতির কাপড় ভিজিয়ে বাসনগুলি মুছে নিন। এবার বাসনগুলি শুকিয়ে নিলেই বাসনগুলি নতুনের মতো মনে হবে।

    গরম পানি

    কাঠের চামচে রান্না করার সময় অনেকটা খাবার লেগে যায় চামচে। তাই এগুলি দিয়ে রান্না করার পর গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেললে আপনাকে এর জন্য আর বাড়তি ঝামেলায় পড়তে হবে না।

    শিরিষ কাগজ

    যদি কাঠের বাসনের নাছোড়বান্দা দাগ একদমই উঠতে না চায় তাহলে শিরিষ কাগজ দিয়ে ঘষলেই দাগ উঠে যাবে। কিন্তু বারবার শিরিষ কাগজ ব্যবহার না করাই ভালো। কারণ এতে বাসন পাতলা হয়ে যেতে পারে।

0
আপনার ব্যাগ

Main Menu